কিশোরগঞ্জে পটকা মাছ খেয়ে স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু

তিন মেয়ে অসুস্থ

বৃহস্পতিবার, ০৭ জানুয়ারি ২০২১

কিশোরগঞ্জে পটকা মাছ খেয়ে স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু
পটকা মাছ ছবিঃ সংগ্রহ

 

কিশোরগঞ্জের ইটনা উপজেলায় পটকা মাছ খেয়ে অসুস্থ হয়ে স্বামী-স্ত্রী মারা গেছেন। একই মাছ খেয়ে তাঁদের তিন মেয়েও অসুস্থ হয়ে পড়েছে। তারা কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে।


মারা যাওয়া দুজন হলেন মৃগা ইউনিয়নের পূর্বপাড়ার হেমেন্দ্র মালাকার (৫৫) ও তাঁর স্ত্রী সঞ্চিতা মালাকার (৪৫)। হেমেন্দ্র মঙ্গলবার রাতে বাড়িতে মারা যান। বুধবার সন্ধ্যায় কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সঞ্চিতা মারা যান।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিনজন হলো সীমা মালাকার (১৬), তমা মালাকার (১৩) ও প্রিমা মালাকার (৪)।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার রাতে পটকা মাছ খেয়ে পরিবারের পাঁচজনই অসুস্থ হয়ে পড়েন। বাড়িতেই হেমেন্দ্র মালাকার মারা যান। বুধবার সকালে বাকি চারজনকে প্রথমে ইটনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। সেখান থেকে তাঁদের কিশোরগঞ্জ শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সন্ধ্যায় সঞ্চিতা মালাকার মারা যান।

হেমেন্দ্র মালাকারের ভাতিজা কালি প্রসন্ন মালাকার বলেন, একই হাসপাতালে সীমা, তমা ও প্রিমা চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

জানতে চাইলে সিভিল সার্জন মো. মুজিবুর রহমান বলেন, পটকা মাছ না খাওয়ার জন্য তাঁরা বারবার সচেতন করছেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ফেসবুকেও সচেতনমূলক পোস্ট করছেন। এরপরও মানুষ এ ভুল করছেন। পটকা মাছ কারও খাওয়া উচিত না। প্রথম আলো

শনিবারের চিঠি/আটলান্টা / জানুয়ারি ০৭,২০২১

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৫:১৩ পূর্বাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ০৭ জানুয়ারি ২০২১

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com