ওবামার নির্বাহী আদেশে ৪০ লাখ ইমিগ্রান্ট বৈধতা পাবে

শনিবার, ২২ নভেম্বর ২০১৪

ওবামার নির্বাহী আদেশে  ৪০ লাখ ইমিগ্রান্ট বৈধতা পাবে

 

 


obamaবর্ণমালা নিউজ, নিউইয়র্কঃ প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা তার নির্বাহী আদেশে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসকারী প্রায় ৪০ লক্ষ আনডকুমেন্টেড ইমিগ্রান্টকে বৈধতা দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। গত ২০ নভেম্বর বৃহস্পতিবার রাতে এক ঘোষণায় তিনি বলেছেন, যারা অন্তত পাঁচ বছর যাবত যুক্তরাষ্ট্রে বাস করছেন এবং যাদের সন্তান আমেরিকান সিটিজেন বা গ্রীনকার্ডধারী স্থায়ী বাসিন্দা তারা তাদের অপরাধমুক্ত অতীতের প্রমাণ দিয়ে বৈধভাবে যুক্তরাষ্ট্রে থাকার সুযোগ পাবেন। তাদেরকে ডিপোর্টেশনের হুমকির মধ্যে পড়তে হবে না। হোমল্যান্ড সিকিউরিটির হিসাব অনুযায়ী এই শ্রেণীতে বৈধতা লাভের জন্য আবেদন করতে পারবেন প্রায় ৩৭ লক্ষ ইমিগ্রান্ট। ওবামার ঘোষণা উপরোক্ত শ্রেণীর লোকদের মাঝে স্বস্থির সৃষ্টি করেছে যে, বৈধভাবে যুক্তরাষ্ট্রে বাস করা সাময়িক হলেও তাদেরকে অবিরত ডিপোর্টেশনের আশংকার মধ্যে থাকতে হবে না।

এছাড়া প্রেসিন্টে ওবামা তার ঘোষণায় ‘ডেফারড অ্যাকশন ফর চাইল্ডহুড অ্যারাইভাল’ (ডাকা) কর্মসূচির আওতা সম্প্রসারণ করেছেন, যার ফলে আরো ৩ লক্ষ তরুণ বৈধতা লাভের জন্য আবেদন করতে পারবেন। ২০১২ সালে চালু করা এই কর্মসূচিতে তরুণদের বয়স সীমা ১৫ বছরের উর্ধে ও ৩১ বছরের বেশী নয় তারা বৈধতা পাওয়ার জন্য উপযুক্ত বলে নির্ধারণ করা হয়েছিল, ওবামার নির্বাহী আদেশে সেই বয়স সীমার অবসান ঘটবে। এছাড়া ২০১২ সালে ঘোষিত ডাকা কর্মসূচিতে ২০০৭ সালের জানুয়ারী মাসের পুর্বে যুক্তরাষ্ট্রে আগতদের বৈধতার জন্য আবেদনের সুযোগ দেয়া হয়েছিল, ওবামার ঘোষণা অনুযায়ী এখন ২০১০ সালের জানুয়ারী মাসের আগে যারা যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করেছে এমন যে কোন তরুণ বৈধতা লাভের জন্য আবেদন করার যোগ্য বলে বিবেচিত হবেন। এই শ্রেণীর আনডকুমেন্টেড তরুণরা তিন বছরের জন্য ডিপোর্টেশনের কবল থেকে মুক্ত থাকবে।

প্রেসিডেন্ট ওবামার নির্বাহী আদেশের আওতায় অপরাধী ও সাম্প্রতিককালে সীমান্ত অতিক্রম করে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশকারীদের ক্ষেত্রে ডিপোর্টেশন অব্যাহত থাকবে। ঘোষণায় তিনি বলেছেন যে, ডিপার্টমেন্ট অফ হোমল্যান্ড সিকিউরিটির ডিপোর্টেশন তালিকার শীর্ষে থাকবে সন্দেহভাজন সন্ত্রাসী, গুরুতর অপরাধী, অপরাধী গ্যাং এর সদস্যরা এবং সম্প্রতি অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রম করে যুক্তরাষ্ট্রে অনুপ্রবেশকারীরা।

ওবামা তার ঘোষণায় আরো বলেছেন, “সম্পৃক্ত করে নেয়াই আমাদের ইমিগ্রেশন ব্যবস্থার অংশ। লক্ষ লক্ষ মানুষ, যারা এদেশে ট্যাক্স না দিয়ে বসবাস করছেন, নিজেদের খেয়াল খুশী মতো চলছেন, আর রাজনীতিবিদরা এ ইস্যুকে ব্যবহার করছে মানুষকে ভয় দেখাতে ও নির্বাচনের সময়ে ভোট বাগাতে, আমরা তার অবসান ঘটাতে চাই। আনডকুমেন্টেড ইমিগ্রান্টদের ঢালাওভাবে ক্ষমা করে দেয়া সঙ্গত নয়। অন্যদিকে ঢালাওভাবে ডিপোর্ট করা একদিকে অসম্ভব ব্যাপার এবং আমাদের বৈশিষ্টের সাথে অসঙ্গতিপূর্ণ।” প্রেসিডেন্টে ঘোষণা অনুযায়ী তার গৃহীত ব্যবস্থা হবে মূলত: ডিপোর্টেশন এর ভীতি থেকে থেকে স্বস্থি প্রদান।  

প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার ঘোষণা সম্পর্কে প্রতিক্রিয়া জানতে ইমিগ্রেশন বিষয়ক সিনিয়র লিগ্যাল কনসালট্যান্ট নাসরিন আহমেদ বলেন, প্রেসিডেন্টের ঘোষণার প্রেক্ষিতে ইমিগ্রেশন বিষয়ক বিস্তারিত বিষয়গুলো জানতে আরো দু’এক সপ্তাহ সময় লেগে যেতে পারে। এর মধ্যে ইউনাইটেড ষ্টেটস সিটিজেনশিপ এন্ড ইমিগ্রেশন সার্ভিসেস এবং ষ্টেট ডিপার্টমেন্টের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় বিধিমালা প্রকাশ করা হবে বলে তিনি মনে করেন। তবে নাসরিন আহমেদ ধারণা করছেন, ইমিগ্রেশন সংক্রান্ত যে বিষয়গুলো ইতোমধ্যে প্রক্রিয়াধীন রয়েছে, যেমন: ষ্ট্যাটাস এডজাষ্টমেন্ট, ফ্যামিলি এন্ড এমপ্লয়মেন্ট বেজড ইমিগ্রেশন ইত্যাদিও নিস্পত্তি দ্রুততর হবে। এছাড়া যাদের উপর ডিপোর্টেশনের খড়গ ঝুলে আছে এবং যারা রাজনৈতিক আশ্রয় চেয়ে আবেদন করে সিদ্ধান্তের জন্য অপেক্ষা করছেন তাদের বিষয়গুলো নমনীয়ভাবে বিবেচনা করা হতে পারে প্রেসিডেন্টের নির্বাহী আদেশের ফলে। 

নাসরিন আহমেদ ধারণা অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রের প্রচলিত ইমিগ্রেশন আইন অনুযায়ী গুরুতর অপরাধ কর্মে জড়িত, চিহ্নিত টেররিষ্ট, সন্দেহভাজন টেররিষ্ট, অপরাধী চক্রের সদস্য এবং বার বার অপরাধে লিপ্ত হয়েছেন এমন অবৈধ ইমিগ্রান্টদের ক্ষেত্রে যুক্তরাষ্ট্র সরকার কোন নমনীয়তা প্রদর্শন করবে না। প্রেসিডেন্টের ঘোষণায়ও তাদের ডিপোর্ট করার ব্যাপারে কোন ধরনের শৈথিল্য দেখানোর সুযোগ রাখা হয়নি। 

প্রেসিডেন্টের ঘোষণার আওতায় বৈধতা লাভের জন্য আবেদন করতে পারবেন এমন আনডকুমেন্টেড ইমিগ্রান্টদেরকে নাসরিন আহমেদ তাদের বার্থ সার্টিফিকেট, যুক্তরাষ্ট্রে বৈধভাবে প্রবেশ সংক্রান্ত ডকুমেন্ট এবং যেখানে বসবাস করছেন তার প্রমাণসহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সংগ্রহ করে রাখার পরামর্শ দিয়েছেন, যাতে তারা যথাসময়ে ত্রুটিমুক্তভাবে বৈধতার আবেদন করতে পারেন। প্রয়োজনে তিনি ইমিগ্রেশন বিষয়ক আইনজীবী ও পরামর্শকদের সাথে আলোচনা করে বিস্তারিত জেনে নেয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। 

 

 

 

 

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ১০:৪৯ পূর্বাহ্ণ | শনিবার, ২২ নভেম্বর ২০১৪

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com