এ এক আজব নির্বাচন — মুফতী রেজাউল করীম

বৃহস্পতিবার, ৩১ ডিসেম্বর ২০১৫

এ এক আজব নির্বাচন — মুফতী  রেজাউল করীম

Nirbaconদলীয় প্রতীকে প্রথম স্থানীয় নির্বাচন, যেটা ইতিহাস। কিন্তু সেটাই কিনা হয়ে গেলো ‘আজব’। হয়ে যাওয়া পৌর নির্বাচন নিয়ে এমনটাই প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির ও চরমোনাই পীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম।

নির্বাচনের নামে সরকার জাতির সাথে আবারো তামাশা করেছে মন্তব্য দলটির আমির বলেন, ‘পৌরসভা নির্বাচনে জাতি আবারো প্রত্যক্ষ করলো এক আজব নির্বাচনের।’


বুধবার রাতে এক বিবৃতিতে তিনি এ মন্তব্য করে বলেন, ‘গত তিন সিটি নির্বাচনে সীমাহীন ভোট জালিয়াতির পর জাতি আশা করেছিল পৌর নির্বাচন হয়তোবা নিরপেক্ষ করে সরকার প্রমাণ করবে যে, তারা নিরপেক্ষ। কিন্তু সরকার তা করতে ব্যর্থ হয়েছে।’

রেজাউল করিম বলেন, ‘জাতি অবাক বিস্ময়ে দেখেছে যে, ইতিহাসের সবচেয়ে ভয়াবহ ভোট ডাকাতি, জালিয়াতি, কেন্দ্র দখলের ঘটনা ঘটেছে এবং ইসলামী আন্দোলনের শত শত এজেন্টসহ বিরোধী দলের এজেন্টদের প্রহার করে কেন্দ্র থেকে বের করে দিয়ে। এতে করে নির্বাচনের মাজা ভেঙে দেয়া হয়েছে। মীরেরসরাইয়ে ইসলামী আন্দোলনের মেয়র প্রার্থী মির্জা আরিফ মঈনুদ্দিন নিজেই ভোট দিতে পারেননি।’

তিনি বলেন, ‘নির্বাচন কমিশনের মতো একটি সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানকে সরকার ধ্বংস করে দিয়ে নির্বাচন কমিশনকে আজ্ঞাবহ ও দলীয় কমিশনে পরিণত করেছে। নির্বাচনে জনগণের আগ্রহ ও ইচ্ছাকে ধুলিসাৎ করে দেয়া হয়েছে। ভবিষ্যতে নির্বাচন নিয়ে আর ভোটারদের কোনো আগ্রহ থাকবে না।’

বর্তমান নির্বাচন কমিশন সরকারের আজ্ঞাবহ ও পুতুল হিসেবে পরিচয় দেয়ায় অবিলম্বে সিইসির পদত্যাগ দাবি করেন চরমোনাই পীর।

এদিকে ইসলামী আন্দোলনের মহাসচিব অধ্যক্ষ মাওলানা ইউনুছ আহমাদের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি ইসিতে গিয়ে বিভিন্ন অভিযোগ এনে নির্বাচন বাতিলের দাবি জানিয়েছেন।

শনিবারের চিঠি/ আটলান্টা/ ৩১ ডিসেম্বর ২০১৫

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ১১:২৮ পূর্বাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ৩১ ডিসেম্বর ২০১৫

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com