উদ্বোধন হল ‘সোনার বাংলা এক্সপ্রেস’

রবিবার, ২৬ জুন ২০১৬

উদ্বোধন হল ‘সোনার বাংলা এক্সপ্রেস’

ঢাকাঃ ঈদে ঘরমুখো মানুষদের চাপ প্রতিবারই অনেক বেশি। তাই সে চাপ সামাল দিতে ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে চালু হল নতুন ট্রেন ‘সোনার বাংলা এক্সপ্রেস। এই ট্রেনটি ৫ ঘন্টা ৪০ মিনিটে চলাচলকারী ঢাকা-চট্টগ্রাম পথে ২য় বিরতিহীন ট্রেন। এর আগে প্রথম বিরতিহীন আন্তঃনগর ট্রেন ‘সুবর্ণ এক্সপ্রেস’ চলাচল শুরু করে ১৯৯৮ সালের ১৪ এপ্রিল।

১৬ বগির ‘সোনার বাংলা এক্সপ্রেস’ ট্রেনটি রাজধানী ঢাকা স্টেশন থেকে ছেড়ে যাবে চট্টগ্রামে এবং চট্টগ্রাম থেকে ঢাকায় ফিরে আসবে।


গতকাল সকাল ১১টায় লাল সবুজ ট্রেনটি উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ ট্রেনটি বাণিজ্যিকভাবে যাত্রী পরিবহন শুরু করবে ।

এ নিয়ে সকাল থেকে এক সাজ সাজ রব শুরু হয় ঢাকা রেলওয়ে স্টেশনে। শুক্রবারই (২৪ জুন) লাল সবুজ ট্রেন সোনার বাংলাকে সাজানো হয়। এছাড়া সার্বিক নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে ফেলা হয়েছে ঢাকা রেলওয়ে স্টেশন। শুক্রবার থেকে কয়েক দফা ঢাকা  স্টেশন ঘুরে দেখেছেন এবং নতুন এ ট্রেনের বিভিন্ন কোচ পরিদর্শন করছেন রেলপথ মন্ত্রী মুজিবুল হক।

Train 02উদ্বোধন অনুষ্ঠানে দেওয়া বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী রেলের উন্নয়নে তাঁর সরকারের অবদানের কথা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, তাঁর সরকারের আমলে ৯৮টি নতুন ট্রেন চালু হয়েছে। ২৬টি ট্রেনের সেবা বাড়ানো হয়েছে।

আন্তনগর ট্রেন সোনার বাংলা এক্সপ্রেসের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘উন্নত দেশের মতো পাতাল ও বুলেট ট্রেন নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের।’

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, ‘রেল যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে সরকারের বিভিন্ন পরিকল্পনা রয়েছে। সারা দেশকে রেল যোগাযোগের আওতায় আনা হবে। এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের (এডিবি) অর্থায়নে ৫০টি ব্রডগেজ ও ১০০টি মিটারগেজ যাত্রীবাহী কোচ এবং ভারতীয় ঋণ সহায়তায় ১২০টি যাত্রীবাহী কোচ রেলওয়েতে সংযোজিত হচ্ছে।’

এদিকে ট্রেনটির উদ্বোধন উপলক্ষে ঢাকা রেলওয়ে স্টেশনে ঈদের অগ্রিম টিকিট বিক্রিও সাময়িকভাবে বন্ধ রয়েছে।

সূত্রের মাধ্যমে জানা গেছে, ২৯ ও ৪ জুলাই এর অগ্রিম টিকিট রবিবার (২৬ জুন) এবং ৩০ জুন ও ৫ জুলাইয়ের অগ্রিম টিকিট পাওয়া যাবে সোমবার (২৬ জুন)।

সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, নতুন ট্রেন ‘সোনার বাংলা এক্সপ্রেস শনিবার ছাড়া নিয়মিত চলবে ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে। ঢাকা রেল স্টেশন থেকে সকাল ৭টা ছেড়ে চট্টগ্রাম পৌঁছাবে বেলা ১২টা ৪০ মিনিটে এবং একই ট্রেন চট্টগ্রাম স্টেশন থেকে বিকেল ৫টায় ছেড়ে ঢাকা পৌঁছাবে রাত ১০টা ৪০ মিনিটে।

রেলওয়ে সূত্র জানায়, ১৬ বগির বিশেষ ট্রেনটি ৭৪৬ সিটের। শোভন চেয়ারের ৭টি বগিতে মোট আসন ৪২০টি, শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত (এসি) ৪ বগিতে মোট আসন ২২০টি, এসি বাথের ২টি বগিতে আসন রয়েছে ৬৬টি। ভাড়া এসি চেয়ারের ১১০০ টাকা, এসি সিট ও বার্থ সিটের ১ হাজার টাকা এবং শোভন সিটের ৬শ’ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

শনিবারের চিঠি / আটলান্টা / জুন ২৬, ২০১

 

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ১২:১৮ অপরাহ্ণ | রবিবার, ২৬ জুন ২০১৬

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com