আরাফাত রহমান কোকো মারা গেছেন

শনিবার, ২৪ জানুয়ারি ২০১৫

আরাফাত রহমান কোকো মারা গেছেন

 

শনিবার রিপোর্টঃ সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে আরফাত রহমান কোকো মারা গেছেন (ইন্নালিল্লাহে .. … রাজেউন)। বাংলাদেশ সময় শনিবার বেলা ১২টার দিকে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে তিনি মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৪৫ বছর।


সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান এবং বেগম খালেদা জিয়ার কনিষ্ঠ ছেলে আরাফাত রহমান কোকো ছিলেন একজন ব্যবসায়ী ও রাজনীতিক। আরাফাত রহমান বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড ও সিটি ক্লাবের সঙ্গেও ছিলেন যুক্ত। উল্লেখ্য, গত ওয়ান ইলেভেনের সময় গ্রেপ্তার হন আরাফাত রহমান কোকো। ২০০৮ সালের ১৭ জুলাই তৎকালীন সেনা নিয়ন্ত্রিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের নির্বাহী আদেশে মুক্তি পাওয়ার পর চিকিৎসার জন্য থাইল্যান্ড যান তিনি। কিন্তু এরপর দেশে না ফিরে তিনি মালয়েশিয়ায় পাড়ি জমান এবং সেখানে স্ত্রী ও  দুইটি কন্যা  সন্তান নিয়ে কুয়ালালামপুরের একটি বাড়িতে ভাড়া থাকতেন।

মালয়েশিয়ার একটি হাসপাতালে নেয়ার পথে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে হার্ট অ্যাটাকে ইন্তেকাল করেন তিনি। বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস সচিব মারুফ কামাল খান সোহেল এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। শনিবার বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফিংয়ে তিনি জানিয়েছেন, হৃদরোগে আক্রান্ত হলে আরাফাত রহমান কোকোকে মালয়েশিয়ার ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি হাসপাতালে নেয়ার পথে তিনি শেষ নিশ্বাঃস ত্যাগ করেন। মরদেহের পাশে বর্তমানে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসের ভাই মির্জা খোকন অবস্থান করছেন। আরাফাতের দাফনের বিষয়ে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে আগামি সোমবার তার মরদেহ দেশে আনা হবে বলে জানা গেছে।

এদিকে, বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান মালয়েশিয়া যাচ্ছেন ছোট ভাই আরাফাত রহমান কোকোকে শেষ বারের মত দেখতে। শনিবার অসুস্থ হলে হাসপাতালে নেয়ার পথে কোকো মারা যান। লন্ডনে কিংস্টনের বাড়িতে তারেক জিয়ার রাজনৈতিক সহকর্মীরা উপস্থিত হয়েছেন। তবে তারেক জিয়া দেশে আসছেন না।

 আরাফাত রহমান কোকোর অকাল মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করছে জর্জিয়ার বিএনপি নেতৃবৃন্দ।

 

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৮:৩২ অপরাহ্ণ | শনিবার, ২৪ জানুয়ারি ২০১৫

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com