অসহায় রাজনের করুণ চাহনী

শনিবার, ০১ আগস্ট ২০১৫

অসহায় রাজনের করুণ চাহনী

 

 


মিশুক সেলিম

রাস্তার ধারে স্টেশন স্টেশন মুঠো ফোন হাতে
থমকে দাঁড়ানো যুবকের মতো মানবতা আজ স্তব্ধ,
বিশ্বসভ্যতা সমকামিদের দখলে, মৃত্যসাগরে জিম্মি ।
তুমি অতিথি পাখির মতো আটলান্টিক পার হয়ে ,
সাদা বাড়ির কালো মানুষের দিকে হাত বাড়িয়েছো,
মহাপ্রলয় অতি সন্নিকটে, মেনে নিয়েছি, নিতে হয়।
কবিংশ শতাব্দীর শুরুতে ফিরিয়ে দাও অরণ্য
বলে চিৎকার করো ,মধ্যযুগীয় কায়দায় খুঁচিয়ে খুঁচিয়ে
আমাকে মারো, উল্লাসে ফেঁটে পড়ে অট্টহাসি হাসো ,
হে যুবক ,তুমি কি তোমার পিতার পরিচয় জানো ?
তবে কি বৃটিশ কিংবা হানাদারের রক্ত বহন করো ?
সেকি আকুতি, সেকি হাহাকার পানি দাও পানি দাও
বলে আর্তচিৎকার , অসহায় রাজনের করুণ চাহনী,
খুব দ্রত নিস্তেজ হয়ে পড়ে নিস্পাপ মায়াবী দেহখানি।
কেঁপে কেঁপে উঠে বাংলার মানবিক হৃদয়ের বাণী।

শনিবারের চিঠি / আটলান্টা / ০১ আগষ্ট ২০১৫

 

 

 

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ১০:৫১ পূর্বাহ্ণ | শনিবার, ০১ আগস্ট ২০১৫

https://thesaturdaynews.com |

Development by: webnewsdesign.com